1. info@dainikganokhabor.com : দৈনিক দৈনিক গণ খবর : দৈনিক দৈনিক গণ খবর
  2. info@www.dainikganokhabor.com : দৈনিক গণ খবর :
শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০৭:৩৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
তানোর পৌর বাসিকে ঈদুল আযাহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন রবিন সরকার বাঘায় আম বোঝায় ট্রাক নিয়ন্ত্রন হারিয়ে পার্শ্ববর্তী দোকানে- আহত-২ লালপুরে মরহুম পিয়াস আলীর আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া মাহফিল বির্তকিত সাংবাদিক রফিকের রোষানলে সাংবাদিক কাজী শাহেদ,মিথ্যাচারের প্রতিবাদ নবনির্বাচিত ভাইস-চেয়ারম্যান পপি’র বিরুদ্ধে অপপ্রচার সংবাদ প্রকাশের জেরে সামাজিক মাধ্যমে হুমকি,থানায় জিডি ঝলমলিয়া বাজারে পশু কেনা- বেচায় অতিরিক্ত খাজনা আদায়ের অভিযোগ মোহনপুরে পিজি সদস‍্যদের মাঝে পোল্ট্রি খাদ‍্য ও উপকরণ বিতরন বাঘায় আমোদপুর নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলাম ও সভাপতি আলী হোসেনের বিরুদ্ধে মানববন্ধন লালপুর থানার এএসআই ইউসুফ আলীর বিরুদ্ধে আইজিপি অফিসে অভিযোগ

নির্বিকার মন্ত্রীরা সীমান্তে রক্তাক্ত ঘটনা মেনে নিচ্ছেন: ফখরুল

  • প্রকাশিত: বুধবার, ২৭ মার্চ, ২০২৪
  • ৯০ বার পড়া হয়েছে

 

বার্তা অনলাইন ডেস্কঃ সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে দুই বাংলাদেশি হতাহতের ঘটনায় বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

নওগাঁর পোরশা উপজেলার সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে আল আমিন নামে এক বাংলাদেশিকে হত্যা এবং লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার দুর্গাপুর সীমান্তে গুলি করার পর লিটন মিয়া নামে (১৯) এক বাংলাদেশি যুবককে নিয়ে যাওয়ার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বুধবার এক বিবৃতিতে বিএনপির মহাসচিব বলেন, মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের দিনেও সীমান্তে পৈশাচিকভাবে একজনকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে আর একজনকে গুলি করে তুলে নিয়ে গেছে বিএসএফ। এ ঘটনায় আবারও প্রমাণিত হয়েছে বাংলাদেশের নাগরিকদের কোনো নিরাপত্তা নেই এবং স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব এখন চরম সংকটে।

তিনি বলেন, মহান স্বাধীনতা দিবসের দিনে এ ধরনের প্রাণ বিনাশি রক্তাক্ত ঘটনা হৃদয় বিদারক ও আত্ম মর্যাদাকে ক্ষুণ্ন করে। সীমান্তে এক বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যা ও আর একজনকে গুলি করে ধরে নিয়ে যাওয়ার পরও ডামি সরকার ও তাদের মন্ত্রীরা এখনও নিশ্চুপ। প্রতিবাদ বা কোনো পদক্ষেপ নেওয়া দূরে থাক টু শব্দটিও পর্যন্ত তারা করেনি বরং মন্ত্রীরা নির্বিকারভাবে এ সমস্ত রক্তাক্ত ঘটনা মেনে নিচ্ছে।

মির্জা ফখরুল বলেন, ডামি সরকারের নতজানু নীতির কারণে বাংলাদেশি নাগরিকদের জীবন নিরাপত্তাহীন। ক্ষমতার জন্য এরা দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব দুর্বল করতেও দ্বিধা করে না। শুধু সীমান্তে পাখির মতো মানুষকে গুলি করে হত্যা নয়, বাংলাদেশের অভ্যন্তরে ঢুকে লুটপাট, হামলা, ভাঙচুর, এমনকি ধর্ষণের ঘটনা ঘটলেও কোনো প্রতিবাদ করে না শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতার ধরে রাখার জন্য দেশকে জিম্মি করে ফেলেছেন। তারা ক্ষমতা ধরে রাখতে সব কিছু উজাড় করে দিলেও দেশের মানুষ এক বিন্দু ছাড় দেবে না। তাই দলমত নির্বিশেষে সবাইকে সীমান্তে বাংলাদেশি হত্যার বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে হবে। একমাত্র অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচনে জনগণের ভোটে নির্বাচিত সরকারই দেশের মানুষের নিরাপত্তা ও সার্বভৌমত্ব নিশ্চিত করতে পারে।

বিএনপি মহাসচিব মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের দিনেও সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে দুই বাংলাদেশি হতাহতের ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
 গণখবর সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত 
প্রযুক্তি সহায়তায়: n̶a̶z̶m̶u̶l̶ ̶r̶o̶n̶i̶